ভিডিও কলের জন্য বিশেষ ডিভাইস আনলো ফেসবুক!

বেশ কিছুদিন ধরেই একটা গুঞ্জন চলছিল, ফেসবুক কিছু একটা দেখাবে। কিন্তু ঠিক কী দেখাবে তা কেউই নিশ্চিত করে বলতে পারছিলনা। মাঝখান থেকে বের হল ফেবুকের ৫ কোটি ব্যবহারকারীর একাউন্টে হ্যাকিং আক্রমণের খবর! যদিও আপাতদৃষ্টিতে মনে হচ্ছে ফেসবুক ক্যামব্রিজ অ্যানালাইটিকার মত এই ধকলও সামলে উঠেছে, তবে জিডিপিআর ও অন্যান্য আইনি প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে হয়ত যেতে হবে কোম্পানিটিকে। বিশাল অংকের জরিমানাও হতে পারে। কিন্তু এই সবকিছুর মধ্যেই আজ হঠাত নতুন কিছু প্রকাশ করল ফেসবুক। কোনো অ্যাপ কিংবা অ্যালোগিরদম চেঞ্জ নয়, আজ এসেছে জ্বলজ্যান্ত নতুন দুটি হার্ডওয়্যার, যার নাম ‘পোর্টাল’।

না, কোনো অনলাইন নিউজ পোর্টাল নয়। এটা হচ্ছে ফেসবুকের নতুন ভিডিও কলিং ডিভাইস। ট্যাবলেট ঘরানার দুটি ডিজিটাল যোগাযোগ যন্ত্র প্রকাশ করেছে ফেসবুক, যার একটির নাম পোর্টাল, ও অপরটি পোর্টাল প্লাস (পোর্টাল+)।

এগুলো ইন্টারনেটে যুক্ত করে ও এতে আপনার ফেসবুক মেসেঞ্জার একাউন্ট লগইন করে অন্যান্য ফেসবুক মেসেঞ্জার ব্যবহারকারীর সাথে ভিডিও কল করতে পারবেন। এমনকি গ্রুপ কলিংও সম্ভব।

আগেই বলেছি, পোর্টালের মোট দুটি মডেল। এদের মধ্যে পোর্টাল হচ্ছে ডেস্ক ক্যালেন্ডারের মত দেখতে একটি ডিভাইস যাতে আছে ১০ ইঞ্চি সাইজের একটি টাচস্ক্রিন, ফ্রন্ট ক্যামেরা, মাইক্রোফোন ও স্পিকার। এর স্ক্রিন রেজ্যুলেশন ১২৮০ x ৮০০ পিক্সেল।

অপরদিকে পোর্টাল+ এ আছে ১৫ ইঞ্চি ১৯২০ x ১০৮০ পিক্সেল রেজ্যুলেশনের লম্বা একটি টাচস্ক্রিন। আরও আছে ক্যামেরা, মাইক্রোফোন ও স্পিকার।

উভয় ডিভাইসেই অ্যামাজন অ্যালেক্সা ভয়েস এসিস্ট্যান্ট বিল্ট-ইন আছে, ফলে আপনি ভয়েস কমান্ড দিয়ে অনেক কাজ করতে পারবেন। এর এআই ক্যামেরা ভিডিও কলে থাকা ব্যক্তির নড়াচড়া বুঝে সেই অনুযায়ী ফ্রেম অ্যাডজাস্ট করে নেয়। এছাড়া আরও আছে নয়েজ মিনিমাইজার ও মেসেঞ্জার ভিডিও ফিল্টার/স্টিকার ও ফ্রেম। বাড়তি অ্যাপও ইনস্টল করা যাবে এতে।

ইতোমধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রের জন্য portal.facebook.com সাইটে ফেসবুক পোর্টালের প্রি-অর্ডার শুরু হয়ে গেছে, যা নভেম্বরে পাওয়া যাবে। পোর্টালের দাম ১৯৯ ডলার, পোর্টাল+ এর দাম ৩৪৯ ডলার। দুটি একসাথে কিনলে ১০০ ডলার ডিসকাউন্ট।